সাতক্ষীরা ০৬:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আগুনে আমার সব শেষ, ব্যবসায়ীদের বিলাপ

পিসিবার্তা ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ১০:৩২:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩ ২৫৩ বার পঠিত

রাজধানীর বঙ্গবাজারে লাগা আগুনে জীবনের সব পুঁজি শেষ হয়েছে গেছে। মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকালে ঘটনাস্থলের সামনে দাঁড়িয়ে বিলাপ করতে করতে এ কথা বলেন বঙ্গবাজারের প্যা‌ন্টের দোকানি শরীফ মিয়া।

তিনি বলেন, এই পানিতে কিছু হবে না। পানি ভেতরে যাচ্ছে না। এই পানি তো উপরে বাষ্প হয়ে যাচ্ছে।

বঙ্গবাজার মার্কেটে লাগা আগুন পাশের এনেক্সকো টাওয়ারে ছড়িয়ে পড়েছে। মার্কেটটিতে ছয়টি কাপড়ের দোকান রয়েছে মো. স্বপনের। কিছু মালামাল বের করে আনতে পারলেও বাকি সব মালামাল পুড়ে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

মো. স্বপন বলেন, ঈদ উপলক্ষ্যে প্রায় কোটি টাকার মালামাল দোকানগুলোতে উঠিয়েছিলাম। আমার সব শেষ, সব মালামাল পুড়ে গেছে। শুধু স্বপন নয়, আগুনে সব পুড়ে গেছে আরও অনেক ব্যবসায়ীর। তারাও তার মতো দূরে দাঁড়িয়ে বিলাপ করছেন।

কাউসার নামে আরেক ব্যবসায়ী হাউমাউ করে কান্না করছিলেন। তিনি বলেন, ভাই ঈদ উপলক্ষ্যে লাখ লাখ টাকার মালামাল তুলেছি। আমার সব শেষ ভাই।

বঙ্গবাজারে আগুন নিয়ন্ত্রণে এখনো কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৪১টি ইউনিট। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা মার্কেটের চার দিক থেকে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ জানিয়েছে, বঙ্গবাজারের আগুন নিয়ন্ত্রণে ঢাকায় ফায়ার সার্ভিসের যত ইউনিট আছে সব ইউনিট ঘটনাস্থলের দিকে যাচ্ছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার রাফি আল ফারুক বলেন, প্রয়োজন হলে সব ইউনিট কাজ করবে, না হলে চলে আসবে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকাল ৬টা ১০ মিনিটে আগুন লাগার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস। আর ৬টা ১২ মিনিটে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এছাড়া হতাহতের কোনো খবরও পাওয়া যায়নি।

ট্যাগস :

আগুনে আমার সব শেষ, ব্যবসায়ীদের বিলাপ

আপডেট সময় : ১০:৩২:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩

রাজধানীর বঙ্গবাজারে লাগা আগুনে জীবনের সব পুঁজি শেষ হয়েছে গেছে। মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকালে ঘটনাস্থলের সামনে দাঁড়িয়ে বিলাপ করতে করতে এ কথা বলেন বঙ্গবাজারের প্যা‌ন্টের দোকানি শরীফ মিয়া।

তিনি বলেন, এই পানিতে কিছু হবে না। পানি ভেতরে যাচ্ছে না। এই পানি তো উপরে বাষ্প হয়ে যাচ্ছে।

বঙ্গবাজার মার্কেটে লাগা আগুন পাশের এনেক্সকো টাওয়ারে ছড়িয়ে পড়েছে। মার্কেটটিতে ছয়টি কাপড়ের দোকান রয়েছে মো. স্বপনের। কিছু মালামাল বের করে আনতে পারলেও বাকি সব মালামাল পুড়ে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

মো. স্বপন বলেন, ঈদ উপলক্ষ্যে প্রায় কোটি টাকার মালামাল দোকানগুলোতে উঠিয়েছিলাম। আমার সব শেষ, সব মালামাল পুড়ে গেছে। শুধু স্বপন নয়, আগুনে সব পুড়ে গেছে আরও অনেক ব্যবসায়ীর। তারাও তার মতো দূরে দাঁড়িয়ে বিলাপ করছেন।

কাউসার নামে আরেক ব্যবসায়ী হাউমাউ করে কান্না করছিলেন। তিনি বলেন, ভাই ঈদ উপলক্ষ্যে লাখ লাখ টাকার মালামাল তুলেছি। আমার সব শেষ ভাই।

বঙ্গবাজারে আগুন নিয়ন্ত্রণে এখনো কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৪১টি ইউনিট। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা মার্কেটের চার দিক থেকে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ জানিয়েছে, বঙ্গবাজারের আগুন নিয়ন্ত্রণে ঢাকায় ফায়ার সার্ভিসের যত ইউনিট আছে সব ইউনিট ঘটনাস্থলের দিকে যাচ্ছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার রাফি আল ফারুক বলেন, প্রয়োজন হলে সব ইউনিট কাজ করবে, না হলে চলে আসবে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকাল ৬টা ১০ মিনিটে আগুন লাগার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস। আর ৬টা ১২ মিনিটে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এছাড়া হতাহতের কোনো খবরও পাওয়া যায়নি।