সাতক্ষীরা ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

সার্বজনীন পেনশন স্কিম বাধ্যতামূলক করে এমপিওভুক্ত স্কুলে স্কুলে চিঠি

পিসিবার্তা ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০১:১৩:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪ ২৫ বার পঠিত

চট্টগ্রামের চন্দনাইশের মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সম্প্রতি উপজেলার এমপিওভুক্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একটি চিঠি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ‘উপজেলার এমপিওভুক্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী (১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী) বাধ্যতামূলক সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করে ২৫ এপ্রিলের মধ্যে অফিস চলাকালীন সময়ের মধ্যে তার তালিকা, এমপিও সীট (শিট) এবং রশিদের সত্যায়িত হার্ডকপি বাহক মারফত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে জমা প্রদানের জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানগণকে অনুরোধ করা হলো।’ শুধু তাই নয়, গত ৮ এপ্রিল পাঠানো ওই চিঠিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সতর্কও করে দেওয়া হয়। বলা হয়, ‘এর ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠান প্রধান দায়ী থাকবেন।’

শুধু চন্দনাইশ নয়। দেশের প্রতিটি উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে এমন চিঠি দিয়ে শিক্ষকদের বাধ্যতামূলকভাবে সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করতে বলা হচ্ছে। শিক্ষা অফিসকে এই চিঠি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলা শিক্ষা অফিসে পেনশন স্কিমের আওতায় সকল বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বাধ্যতামূলক নিবন্ধনকরণপূর্বক প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য চিঠি দিয়েছেন ইউএনও সিফাত আনোয়ার তুমপা। তিনি বলেন, ‘আমরা চাই মাধ্যমিক শিক্ষকসহ সকল মানুষ এই স্কিমের আওতায় আসুক। আমাদের বিভাগীয় কমিশনারও আমাদের এখানে এসে উদ্বুদ্ধকরণ সভা করেছেন।’ তবে মাধ্যমিক শিক্ষকদের বাধ্যতামূলক স্কিম চালু করতে হবে এমন চিঠি তিনি দেননি বলে জানিয়েছেন। যদিও অনুলিপিতে দেখা গেছে চিঠিতে বাধ্যতামূলক শব্দটি রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সার্বজনীন পেনশন স্কিম বাধ্যতামূলক করে এমপিওভুক্ত স্কুলে স্কুলে চিঠি

আপডেট সময় : ০১:১৩:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

চট্টগ্রামের চন্দনাইশের মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সম্প্রতি উপজেলার এমপিওভুক্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একটি চিঠি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ‘উপজেলার এমপিওভুক্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী (১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী) বাধ্যতামূলক সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করে ২৫ এপ্রিলের মধ্যে অফিস চলাকালীন সময়ের মধ্যে তার তালিকা, এমপিও সীট (শিট) এবং রশিদের সত্যায়িত হার্ডকপি বাহক মারফত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে জমা প্রদানের জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানগণকে অনুরোধ করা হলো।’ শুধু তাই নয়, গত ৮ এপ্রিল পাঠানো ওই চিঠিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সতর্কও করে দেওয়া হয়। বলা হয়, ‘এর ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠান প্রধান দায়ী থাকবেন।’

শুধু চন্দনাইশ নয়। দেশের প্রতিটি উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে এমন চিঠি দিয়ে শিক্ষকদের বাধ্যতামূলকভাবে সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করতে বলা হচ্ছে। শিক্ষা অফিসকে এই চিঠি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলা শিক্ষা অফিসে পেনশন স্কিমের আওতায় সকল বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বাধ্যতামূলক নিবন্ধনকরণপূর্বক প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য চিঠি দিয়েছেন ইউএনও সিফাত আনোয়ার তুমপা। তিনি বলেন, ‘আমরা চাই মাধ্যমিক শিক্ষকসহ সকল মানুষ এই স্কিমের আওতায় আসুক। আমাদের বিভাগীয় কমিশনারও আমাদের এখানে এসে উদ্বুদ্ধকরণ সভা করেছেন।’ তবে মাধ্যমিক শিক্ষকদের বাধ্যতামূলক স্কিম চালু করতে হবে এমন চিঠি তিনি দেননি বলে জানিয়েছেন। যদিও অনুলিপিতে দেখা গেছে চিঠিতে বাধ্যতামূলক শব্দটি রয়েছে।